ইমরান খান পিটিআইয়ের চেয়ারম্যান পদ ছাড়ছেন

পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফের (পিটিআই) চেয়ারম্যান পদ ছাড়ছেন । মামলায় সাজাপ্রাপ্ত হওয়ায় দলীয় প্রধানের পদ বা নির্বাচনে অংশগ্রহণ করার ক্ষেত্রে অযোগ্য ঘোষণা করা হয় তাকে। এজন্য দলটির চেয়ারম্যানের পদ ছাড়তে হচ্ছে ইমরান খানকে।

বুধবার(২৯ নভেম্বর) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে বিবিসি। প্রতিবেদনে বলা হয়, পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ বা পিটিআই নেতা সিনেটর আলি জাফর জানিয়েছেন, দলের চেয়ারম্যান নির্বাচনে ইমরান খান অংশ নেবেন না বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। অন্তর্বর্তীকালীন চেয়ারম্যান হিসাবে তার আইনজীবী ব্যারিস্টার গহর আলী খানকে মনোনীত করেছেন।

ইমরান খানের ওপর থেকে ‘রাজনীতিতে অযোগ্য’ আদেশ আদালত তুলে নিলে তিনি আবার চেয়ারম্যান পদে ফেরত যাবেন বলে জানিয়েছেন জাফর।

পাকিস্তানের আইন অনুযায়ী, তোশাখানা কেস বা উপহার হিসাবে পাওয়া রাষ্ট্রীয় সম্পদ বিক্রির মামলায় অভিযুক্ত হওয়ায় ইমরান খান নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে পারবেন না বা দলীয় পদে থাকতে পারবেন না।

মঙ্গলবার ইমরান খানের আইনজীবী শের আফজাল মারওয়াত বলেন, আদালত তাকে আবার যোগ্য বলে ঘোষণা করলে তিনি আবার চেয়ারম্যানের পদে ফিরে যাবেন।

পিটিআই নেতা সিনেটর আলি জাফর নিশ্চিত করেছেন, চেয়ারম্যান হিসাবে না থাকলেও দলের অভিভাবক ও প্রধান নেতা হিসেবেই থাকবেন ইমরান খান।

তিনি বলেন, ‘তাকে ছাড়া পিটিআই কিছুই নয়। পিটিআই হচ্ছে ইমরান খান এবং ইমরান খান হচ্ছেন পিটিআই। কৌশলগত কারণে এটা করা হচ্ছে। আমরা এই কৌশল নিয়েছি, এটা আমাদের প্ল্যান-বি। বহুদিন ধরেই আমরা এজন্য প্রস্তুতি নিয়েছিলাম।’

ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান পদ পাওয়ার প্রতিক্রিয়ায় ব্যারিস্টার গহর আলী বলেছেন, ‘ইমরান খানকে ধন্যবাদ জানানোর ভাষা আমার নেই। আমি ইমরান খান যতদিন পুনরায় ফেরত না আসবেন, আমি ততদিন তার মনোনীত প্রতিনিধি এবং উত্তরসূরি হিসাবে দায়িত্ব পালন করে যাবে। পিটিআইয়ের আদর্শ এবং সংগ্রাম একই থাকবে।’

তবে ইমরান খান মনোনীত করলেও আগামী ২ ডিসেম্বর পিটিআইয়ের দলীয় সম্মেলনে চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন হবে। সেই নির্বাচনে বিজয়ী হলেই চেয়ারম্যান পদ নিশ্চিত হবে ব্যারিস্টার গহর আলীর। অবশ্য বিবিসি বলছে, ওই নির্বাচনে ইমরান খানের মনোনয়নের বাইরে কারও নির্বাচিত হওয়ার সম্ভাবনা নেই বলা চলে।

সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান বর্তমানে রাওয়ালপিন্ডির আদিয়ালা কারাগারে বন্দি আছেন ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *