জামিন পাননি বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের জামিন আবেদন নামঞ্জুর করেছেন আদালত। ঢাকার মহানগর দায়রা জজ আদালতের ভারপ্রাপ্ত বিচারক ফয়সাল বিন আতিক বুধবার (২২নভেম্বর) দুপুরে এ আদেশ দেন।

তথ্যটি নিশ্চিত করেছেন মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের আইনজীবী গোলাম মোস্তফা খান।

এর আগে বেলা দুইটার পর মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের আইনজীবীরা জামিনের পক্ষে আদালতে যুক্তি তুলে ধরেন। অন্যদিকে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের জামিনের বিরোধিতা করেন ঢাকার মহানগর দায়রা জজ আদালতের প্রধান পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) আবদুল্লাহ আবু।

উভয় পক্ষের শুনানি নিয়ে আদালত মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের জামিন আবেদন নাকচ করেন।

এর আগে ২রা নভেম্বর ঢাকার মহানগর দায়রা জজ আদালতে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের আইনজীবীরা এই জামিন আবেদন করেছিলেন।

প্রধান বিচারপতির বাসভবনের ফটক ভেঙে ইটপাটকেল নিক্ষেপের মামলায় গত ২৯ অক্টোবর গ্রেপ্তার হন মির্জা ফখরুল। পরে ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট (সিএমএম) আদালতে জামিন আবেদন করা হয়। আদালত সেদিন তাঁর জামিন আবেদন নাকচ করে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

মির্জা ফখরুলের আইনজীবী সৈয়দ জয়নুল আবেদীন সেদিন আদালতকে বলেছিলেন, বিএনপির মহাসচিব অসুস্থ। রাজনৈতিকভাবে হয়রানির জন্য তাঁকে এই মামলায় জড়ানো হয়েছে।

তবে মির্জা ফখরুলের জামিনের বিরোধিতা করে পিপি আবদুল্লাহ আবু আদালতে বলেছিলেন, সমাবেশের নামে তাণ্ডবলীলা চালিয়েছে বিএনপি-জামায়াত।

ঢাকার মহানগর দায়রা জজ আদালতে ২০ নভেম্বর মির্জা ফখরুলের জামিন আবেদনের শুনানির কথা ছিল। তবে সেদিন পিপি অসুস্থ থাকায় শুনানি হয়নি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *