নারায়ণগঞ্জে বিএনপির প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন 

সারাদেশের ন্যায় নারায়ণগঞ্জে বিএনপির ৪৫তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন করা হয়েছে। নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক মামুন মাহমুদের নেতৃত্বে ঝাঁকজমক পূর্ণ ভাবে দলটির প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন করা হয়েছে। 

শুক্রবার (০১লা সেপ্টেম্বর ) সকাল ১০ঘটিকার সময় আলী আহমেদ চুনকা পাঠাগারের সামনে সিদ্ধিরগঞ্জ ও ফতুল্লা থানা বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ মিছিল নিয়ে জড়ো হতে থাকেন। 

সকাল ১০:৩০ মিনিটে অধ্যাপক মামুন মাহমুদের আগমনে নেতা কর্মীদের স্লোগানে স্লোগানে মুখরিত হয়ে উঠে পাঠাগার প্রাঙ্গণ। 

এর কিছুক্ষণ পর হাজার হাজার নেতাকর্মী নিয়ে আলী আহমেদ চুনকা পাঠাগার থেকে চাষাড়া শহীদ মিনার চত্বরে এসে শেষ হয় আনন্দ র‍্যালী।

এসময় বাদ্যের তালে তালে ও নেতাকর্মীদের স্লোগানে স্লোগানে মুখরিত হয়ে উঠে নারায়ণগঞ্জের রাজপথ। 

অধ্যাপক মামুন মাহমুদ বলেন, গত বছরের এই দিনে সরকারের পেটুয়া বাহিনী পুলিশ আমাদের আনন্দ ও বিজয় র‍্যালীতে সশস্ত্র হামলা করে আমাদের অনেক নেতাকর্মীকে আহত করেছেন। সেদিন তারা আমাদের যুবদল কর্মী শাওন প্রধানকে গুলি করে হত্যা করেছে। তারপরও তারা আমাদের আন্দোলন সংগ্রাম থেকে দমিয়ে রাখতে পারেনি। কারণ বিএনপি শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের দল। ১৯৭১সালের মুক্তিযুদ্ধের পর সরকার এই দেশকে যখন লুটে খাচ্ছিলো তখনই জিয়াউর রহমান এদেশের সাধারণ মানুষের অধিকার ফিরিয়ে দিতে  বিএনপি নামক রাজনৈতিক দলের প্রতিষ্ঠা করে। সেদিন থেকে আজ পর্যন্ত বিএনপি সাধারণ মানুষের কল্যাণে কাজ করে আসছে। যতদিন না এই দেশে গনতন্ত্র পুনরুদ্ধার হবে ততোদিন পর্যন্ত আমরা রাজপথে আন্দোলন সংগ্রাম চালিয়ে যাবো। 

তিনি আরো বলেন গত ২৯জুলাই পুলিশ আমাদের শান্তিপূর্ণ কর্মসূচিতে বাঁধা দিয়েছে। আমাদের নেতাকর্মীদের উপর লাটি চার্জ, কাঁদানে গ্যাস এবং রাবার বুলেট ছুড়েছে। সেদিন ও আমাদের অনেক নেতাকর্মী আহত হয়েছেন এবং বিএনপি নেতা শহীদুল ইসলাম টিটু সেদিন চোখে আঘাতপ্রাপ্ত হয়েছে। পুলিশ দিয়ে হামলা -মামলা করে জিয়ার সৈনিকদের দমিয়ে রাখা যাবেনা। “দফা এক দাবী এক ” আদায় না হওয়া পর্যন্ত বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের নেতৃত্বে আমরা আমাদের আন্দোলন সংগ্রাম চালিয়ে যাবো। নির্দলীয় তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে নির্বাচন ব্যবস্হা ঘোষণা না হওয়া পর্যন্ত আমাদের আন্দোলন সংগ্রাম চলবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *