বেসরকারি হাসপাতালে অভিযান ও ফুটপাত উচ্ছেদের কারনে ইউএনওর বিরুদ্ধে অপ-প্রচারের অভিযোগ 

আবু কাওছার

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ উপজেলার পাঁচটি হাসপাতালে অভিযান চালিয়ে ৪ লাখ ৮০ হাজার টাকা জরিমানা আদায় ও একটি হাসপাতাল সিলগালা করে দেওয়ায় এবং ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের ভুলতা গাউছিয়া সড়কের সাত শতাধিক অবৈধ দখলকারীকে উচ্ছেদ করায়  উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মোঃ আহসান মাহমুদ রাসেলের বিরুদ্ধে অপ-প্রচারের অভিযোগ উঠেছে।  অনিয়ম, অন্যায়কারী, মাদক ব্যবসায়ী, ফুটপাত চাঁদাবাজ, অসাধু হাসপাতাল ব্যবসায়ীরা একাট্টা হয়ে তাঁর বিরুদ্ধে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমসহ নানাভাবে এ অপ-প্রচার করছে বলে জানা যায়। 

জানা গেছে, গত ১১ ডিসেম্বর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ আহসান মাহমুদ রাসেল রূপগঞ্জে যোগদান করেন। যোগদানের পর তিনি মহান বিজয় দিবস বর্ণিল আয়োজনে উদযাপন করেন। দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নারায়ণগঞ্জ-১(রূপগঞ্জ) আসনে সুষ্ঠুভাবে আয়োজন ও পরিচালনা করেন। প্রাথমিক ও মাধ্যমিক শিক্ষার গুণগত মান উন্নয়নে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে মা ও অভিভাবক সমাবেশের আয়োজন করেন। শিক্ষক-শিক্ষিকাদের নিয়ে পাঠদানের কৌশলসহ নানা দিক নির্দেশনা প্রদান করেন। সরকারি মুড়াপাড়া পাইলট হাই স্কুলের শিক্ষার্থীদের এক্সট্রা কারিকুলাম অ্যাক্টিভিটিসের (নিয়মিত পাঠক্রম বর্হিভূত) বিষয়ে আউটলাইন ও নির্দেশনা প্রদান করেন। ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের ভুলতা গাউছিয়া সড়কের যানজট নিরসনে সাত শতাধিক অসস্থায়ী অবৈধ দখলদারীকে উচ্ছেদ করেন।  মহাসড়কের যানজট নিরসনে অযান্ত্রিক ও অনুমোদনহীন যানবাহন চলাচল বন্ধ করে দেন। রমজান মাসকে সামনে রেখে যানজট নিরসন ও দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণে অভিযান পরিচালনা করেন। জনস্বার্থ সংবলিত উন্নয়ন প্রকল্প টেকসই করার লক্ষ্যে পরিদর্শন ও প্রয়োজননীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করেন। ভুলতার বলাইখাসহ পানি নিষ্কাশনের খালের স্বাভাবিক প্রবাহ রোধকারী শিল্পকারখানা ও ব্যক্তিদের নিয়ে সচেতনতামূলক সভার আয়োজন করে খালের প্রবাহ স্বাভাবিক করে দেন। চলমান এসএসসি পরীক্ষা নকলমুক্ত পরিবেশে আয়োজন ও অভিযুক্ত শিক্ষকদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করেন। দু:স্থ শীতার্তদের মধ্যে শীতবস্ত্র বিতরণ করেন। সামাজিক সৃষ্ট সমস্যা নিয়মিত গণশুনানী  করে সমাধান করছেন। 

এ সকল কর্মকান্ডে অনিয়ম, অন্যায়কারী, মাদকব্যবসায়ী, ফুটপাতের চাঁদাবাজ, অসাধু হাসপাতাল ব্যবসায়ীরা একাট্টা হয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ আহসান মাহমুদ রাসেলের বিরুদ্ধে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমসহ বিভিন্ন প্রচার মাধ্যমে অপ-প্রচারে লিপ্ত রয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। 

রূপগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ আহসান মাহমুদ রাসেল বলেন, নানা অপ-প্রচারে কেউ সুযোগ পাবে না। মাদক ব্যবসা, চাঁদাবাজী, অসাধু ব্যবসায়ীসহ কোন অন্যায়কারীকে ছাড় দেওয়া হবে না। অন্যায়ের বিরুদ্ধে প্রশাসনের অভিযান অব্যাহত থাকবে। 

নারায়ণগঞ্জ-১ (রূপগঞ্জ) আসনের সংসদ সদস্য গোলাম দস্তগীর গাজী বীরপ্রতীক বলেন, মাদক ব্যবসা, চাঁদাবাজী, অসাধু ব্যবসায়ী যে দলেরই হোক তাদের আইনের আওতায় আনা হবে। তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *