মামুন মাহমুদের নেতৃত্বে বিএনপির বিজয় শোভাযাত্রায় নেতাকর্মীরা

মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে শনিবার (১৬ ডিসেম্বর) বেলা আড়াইটার দিকে নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে থেকে একটি শোভাযাত্রা বের হয়েছে।

উক্ত র‍্যালীতে সিদ্ধিরগঞ্জ ও ফতুল্লা থানা বিএনপির কয়েকশো নেতাকর্মী নিয়ে যোগদান করেছেন নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও কেন্দ্রীয় বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য অধ্যাপক মামুন মাহমুদ।

শোভাযাত্রায় ‘দিয়েছি তো আরও দেব রক্ত’, ‘আওয়ামী লীগের দালালেরা হুঁশিয়ার সাবধান’, ‘পুলিশ দিয়ে আন্দোলন বন্ধ করা যাবে না’ এরকম নানা স্লোগান দেন দলটির নেতাকর্মীরা।

মিছিল শুরুর আগে সংক্ষিপ্ত সমাবেশ করে বিএনপি। দলের ভাইস চেয়ারম্যান নিতাই রায় চৌধুরীর সভাপতিত্বে সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মঈন খান। এ সময় আরও বক্তব্য দেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান।

মঈন খান বলেন, ‘বিজয় দিবসকে আওয়ামী লীগ সরকার পরাজয় দিবসে পরিণত করেছে।’

বিএনপির শোভাযাত্রা কাকরাইল মোড়, শান্তিনগর, মালিবাগ হয়ে মগবাজার চৌরাস্তা পর্যন্ত গিয়ে শেষ হয়। বিএনপির নেতারা জানিয়েছে, বিজয় শোভাযাত্রার মধ্য দিয়ে নেতা-কর্মীদের গ্রেপ্তারভীতি কাটাতে চান নীতিনির্ধারকেরা। এর আগে ১০ ডিসেম্বর আন্তর্জাতিক মানবাধিকার দিবসে বিএনপি সারা দেশে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করে। ২৮ অক্টোবর মহাসমাবেশ পণ্ড হওয়ার ৪৩ দিন পর ঢাকায় জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে ওই মানববন্ধনে কয়েক হাজার নেতা-কর্মী জমায়েত হন।

মামুন মাহমুদ বলেন বিজয় দিবসের শোভাযাত্রার মাধ্যমে আবারো প্রমাণ হয়েছে এদেশের জনগণ বিএনপিকে কতটা ভালোবাসে। স্বল্প সময়ের মধ্যে এতো লোক বিজয় দিবসের শোভাযাত্রায় অংশগ্রহন তারই প্রমাণ।

তিনি আরো বলেন পুলিশ দিয়ে হামলা মামলা করে গনতন্ত্র কে নিশ্চিহ্ন করতে চায় হাসিনা সরকার। কিন্তু এদেশের গনতন্ত্রকামী জনগণ তার এই অসৎ উদ্দেশ্য সফল হতে দিবে না। এদেশের জনগণকে সঙ্গে নিয়ে তারেক রহমানের নেতৃত্বে গনতন্ত্র পুনরুদ্ধার না হওয়া পর্যন্ত আমরা রাজপথে আন্দোলন সংগ্রাম চালিয়ে যাবো।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *