রুপগঞ্জে ভূল চিকিৎসায় প্রসূতির মৃত্যু

আবু কাওছার

 রূপগঞ্জে ভুলতা জেনারেল নামে একটি বেসরকারী হাসপাতালে ভুল চিকিৎসায় লুবনা আক্তার(২৭) নামে এক প্রসুতির মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে। এসময় ক্ষিপ্ত হয়ে নিহতের স্বজনরা হাসপাতাল ভাংচুর করে। ভয়ে লাশ রেখে হাসপাতাল থেকে চিকিৎসকসহ  কর্মকর্তা- কর্মচারীরা পালিয়ে যায়। 

 নিহত লুবনা আক্তার আড়াইহাজার থানাধীন গিরদা এলাকার কাপড় ব্যবসায়ী তপন মিয়া স্ত্রী।

 নিহতের স্বজনরা জানান, ব্যবসায়ী তপন তার স্ত্রী লুবনাকে সন্তান প্রসবের জন্য ভুলতা জেনারেল হাসপাতালে গাইনী চিকিৎসক ডাঃ সোনিয়া রহমানের পরামর্শে সোমবার বিকালে হাসপাতালে ভর্তি করান। রাত ৮ টার সময় অপারেশনের সময় দিলেও রাত ১১ টার সময় লুবনাকে অপারেশর থিয়েটারে নিয়ে যায় ডাঃ সোনিয়া রহমান।   চেতনানাশক এনেসথেসিয়া ইনজেকশন পুশ করার পর তার আর জ্ঞান ফিরেনি। ২ ঘন্টা পর পরিবারের কাউকে কিছু না বলে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ অপারেশন থিয়েটার থেকে  লু্বনাকে তড়িগড়ি করে পার্শ্ববর্তি একটি হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানকার ডাক্তার তাকে মৃত বলে ঘোষনা দেন। তখন সেই হাসপাতালে লাশ রেখেই পলায়ন করে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। পরে লাশ নিয়ে নিহতের স্বজন ভুলতা জেনারেল হাসপাতালে আসলে হাসপাতালে কাউকে পাওয়া যায়নি, সবাই  পালিয়ে গেছে। এসময় ক্ষিপ্ত হয়ে নিহতের স্বজনা উত্তেজিত হয়ে হাসপাতালে ভাংচুর করে। 

খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করে। এব্যাপারে কথা বলার জন্য হাসপাতালে কাউকে পাওয়া যায়নি।

ভুলতা পুলিশ ফাড়ির ইনচার্জ জিল্লুর রহমান বলেন,  অপারেশনের সময় এক প্রসুতির মৃত্যুর খবরে হাসপাতালে ভাংচুরের খবর পেয়ে পুলিশ পাঠানো হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *