রূপগঞ্জে অবৈধ ফুটপাত উচ্ছেদে জনমনে স্বস্তি

আবু কাওছার : রূপগঞ্জে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে কাঁচাবাজার ও ফুটপাত উচ্ছেদে ভুলতা-গাউছিয়া এলাকাবাসীর মনে ফিরছে স্বস্তির নিঃশ্বাস। 

৩রা ফেব্রুয়ারী শনিবার মহাসড়কের যানজট নিরসনে মহাসড়কের শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনতে রূপগঞ্জ উপজেলা প্রশাসন উচ্ছেদ অভিযান চালিয়েছেন। অভিযানে রূপগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ দীপক চন্দ্র সাহা, ভুলতা ফাঁড়ির ইনচার্জ মোস্তাফিজুর রহমান ও হাইওয়ে পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ মোঃ আলী আরশাফ মোল্লা ছাড়াও ভুলতা গোলাকান্দাইল ইউপি চেয়ারম্যান সহ এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

অভিযানের পর ফুটপাত নিয়ে মার্কেট ব্যবসায়ীদের মধ্যে নানা জনে নানা মত প্রকাশ করে। তাদের কেউ কেউ বলেন এই এলাকার কাঁচাবাজার ও ফুটপাত উচ্ছেদের পর মহাসড়কের সৌন্দর্য ফিরে আসছে এই সৌন্দর্য কত সময় থাকবে এটাই এখন দেখার বিষয়। চাঁদাবাজরা কিন্তু অনেক প্রভাবশালী, তারা প্রশাসনকে ম্যানেজ করে আবারো মহাসড়কে ফুটপাত বসিয়ে দিবে। আবার অনেকে বলছেন এবার আর বসতে  পারবে না। জানা যায় এবার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার উদ্যোগে উপজেলা পরিষদসহ সব মহলের কর্মকর্তা, ভুলতা গাউছিয়া এলাকার ব্যবসায়ী মহল ও ফুটপাতের হকার নেতা ও জনপ্রতিনিধি সাথে নিয়ে এক যৌথ আলোচনা করে উপজেলা প্রশাসন মহাসড়কের ফুটপাত পরিস্কার রাখার স্থায়ী সমাধানের পথ বের করে উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করেছে।

সচেতন মহল মনে করেন ভুলতা ফ্লাইওভার এলাকার সৌন্দর্য স্থায়ী করতে ফ্লাইওভারের নিচের ডিভাইডারের রেলিং তৈরি করতে হবে। ডিভাইডারে এগুলো না থাকায় ফ্লাইওভারের গোড়ায় যত্রতত্র মল-মূত্র ও প্রসাব করেন পথচারীসহ ফুটপাত ব্যবসায়ীরা। ডিভাইডারে মধ্যে জমানো মল-মুত্রের দুর্গন্ধ ছড়িয়ে পড়ে এলাকার পরিবেশ দূষণ হওয়ায় পথচারীরা অতিষ্ঠ। এই এলাকায় ডিভাইডার ও গোল চত্বরে রেলিং হলে ফুটপাতের ভিতর হকার বসতে পারবে না এতে করে এলাকার পরিবেশও ঠিক থাকবে। উচ্ছেদের পরও ফুটপাতের দৃশ্য পরিষ্কার দেখে পথচারীরা সন্তোষ প্রকাশ করেন এবং সব সময় মহাসড়কের অবস্থা এমনই দেখতে চায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *