রূপগঞ্জে দুই গ্রুপের রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ -নিহত-১, আহত-১৫

আবু কাওছার 

 রূপগঞ্জে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে দুই গ্রুপের রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের সময় গুলিবিদ্ধ হয়ে দ্বীন ইসলাম (২০) নামের এক যুবক নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় গুলিবিদ্ধসহ উভয় পক্ষের অন্তত ১৫জন আহত হয়। নিহত দ্বীন ইসলাম নাওড়া গ্রামের বেলায়েত হোসেনের ছেলে।  বৃহস্পতিবার (৬জুন) উপজেলার কায়েতপাড়া ইউনিয়নে নাওড়া এলাকায় এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকার সাধারণ মানুষের মাঝে চরম আতঙ্ক বিরাজ করছে। উপয়পক্ষের বাড়ি ঘরে হামলা ভাঙচুর ও লুটপাট করেছে বলেও অভিযোগ উঠেছে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, নাওড়া এলাকায় জমি দখল, বালু ভরাট ও আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে কায়েতপাড়া ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম রফিক ও সাবেক ইউপি সদস্য মোশারফ মেম্বারের দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছে। কিছুদিন পর-পর এ দুই গ্রুপ ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া, সংঘর্ষ, গোলাগুলি, হামলা, ভাঙচুর, লুটপাটের ঘটনা ঘটছে। উভয় পক্ষের লোকজন পিস্তল, সর্টগান, টেঁটা, বল্লম, জুঁইতা, রামদা, চাপাতি, চাইনিজ কুঁড়ালসহ অস্ত্রে-শস্ত্রে সজ্জিত হয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন। সংঘর্ষে উভয় পক্ষ  একে অপরকে লক্ষ্য করে এলোপাথারিভাবে গুলি ছোঁড়ে এবং এক পক্ষ আরেক পক্ষের বাড়ি ঘরে হামলা ভাংচুর, ইট পাটকেল নিক্ষেপ ও লুটপাট চালায়। সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধসহ উভয় পক্ষের আরিফ হোসেন, রুবেল, আব্দুল্লাহ, আল-মামুন, সোহেল মিয়া, কামাল হোসেন, লিখন আহমেদ, জেসমিন, ওয়াসিম, সাখায়েতউল্লা, আনু, নুরআলমসহ অন্তত ১৫ জন আহত হয়েছে।

এ বিষয়ে রূপগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ  (ওসি) দীপক চন্দ্র সাহা বলেন, সংঘর্ষের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়েছি। এলাকার পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে। যে কোন অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা এড়াতে এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *