লামিচানের এশিয়া কাপে বাধা নেই, ধর্ষণ মামলার শুনানি পেছালো

আবার পিছিয়ে গেছে নেপাল ক্রিকেটার সন্দীপ লামিচানের বিপক্ষে ধর্ষণ মামলার শুনানি। ফলে এশিয়া কাপ খেলতে এখন আর পাকিস্তান যেতে বাধা থাকল না ২৩ বছর বয়সী সাবেক এ অধিনায়কের।

বার্তা সংস্থা এএনআই জানিয়েছে, বিচারপতি প্রকাশ কুমার পন্ডিতের বেঞ্চে থাকা এ মামলার শুনানি সময় স্বল্পতার কারণে পিছিয়ে গেছে। নেপালের আদালতের এক মুখপাত্র বলেন, ‘আজ ধর্ষণে অভিযুক্ত নেপালি তারকা ক্রিকেটার সন্দীপ লামিচানের বিপক্ষে মামলার শুনানিও স্থগিত করা হয়েছে। বিচারপতি প্রকাশ কুমার পন্ডিতের বেঞ্চে অপেক্ষমাণ এ মামলা আজ শুনানির বাইরে রাখা হয়েছে।’

এ মামলার শুনানির পরবর্তী দিন ধার্য করা হয়েছে আগামী ৭ সেপ্টেম্বর। প্রথমবারের মতো এশিয়া কাপ খেলতে যাওয়া নেপালের প্রথম ম্যাচ ৩০ আগস্ট। মুলতানে তাদের প্রতিপক্ষ স্বাগতিক পাকিস্তান। গ্রুপ পর্বে ৪ সেপ্টেম্বর ভারতের বিপক্ষে শেষ ম্যাচ লামিচানেদের। এশিয়া কাপ খেলতে ২৩ আগস্ট পাকিস্তান পৌঁছায় নেপাল দল। তবে মামলার শুনানি থাকায় দলের সঙ্গে যেতে পারেননি লামিচানে। অবশ্য দলের পক্ষ থেকে বলা হয়েছিল, লামিচানে পুরো সুস্থ বোধও করছিলেন না।


তাঁকে ছাড়াই এশিয়া কাপ খেলতে যাওয়া প্রসঙ্গে দলের ম্যানেজার বলেছিলেন, ‘যেহেতু তার বিরুদ্ধে মামলা চলছে এবং হাজিরা দেওয়ার ব্যাপার আছে, এখনই সে যেতে পারছে না। এ ছাড়া তার স্বাস্থ্যগত কিছু সমস্যাও আছে। খেলা শুরুর আগে এখনো কিছুদিন আছে। সুতরাং পরে দলের সঙ্গে যোগ দেওয়ার সুযোগ এখনো আছে।’

এদিকে লামিচানের মামলার বাদী সেই কিশোরী আত্মহত্যার চেষ্টা করেছেন বলেও খবর এসেছে। আপাতত কাঠমান্ডুর একটি হাসপাতালে তার চিকিৎসা চলছে বলে জানিয়েছে এএনআই। শুরুতে ‘ফাস্ট-ট্র্যাক’ উপায়ে মামলার রায় ঘোষণা করা হবে জানানো হলেও এ নিয়ে কয়েকবার এ মামলার শুনানি পেছাল।

গত বছরের সেপ্টেম্বরে ধর্ষণের অভিযোগে মামলা হয়েছিল লামিচানের বিরুদ্ধে। ওই সময় ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন অব নেপাল (সিএএন) তাঁকে অধিনায়কত্ব থেকে সরিয়ে সাময়িকভাবে নিষিদ্ধ করে। একপর্যায়ে কারাগারেও যেতে হয় তাঁকে। এরপর জামিনে বের হয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলেছেন লামিচানে।

ফেরার পর মাঠে ভালোভাবেই পারফর্ম করেছেন নিজেকে নির্দোষ দাবি করা এ অলরাউন্ডার। মাঠে ফিরে এই সময়ে ওয়ানডেতে ১৯ ম্যাচ খেলে নিয়েছেন ৪২ উইকেট। ওয়ানডে ক্রিকেটে দ্রুততম ১০০ উইকেট নেওয়ার রেকর্ডও (৪২ ম্যাচ) এ সময়ে ভাঙেন তিনি। নেপালকে এশিয়া কাপে নিতেও বড় ভূমিকা ছিল লামিচানের। ছেলেদের এসিসি প্রিমিয়ার কাপে ৩ ইনিংসে ব্যাটিং করে ৫৫ রান ও ৪ ইনিংসে বোলিং করে ১৩ উইকেট নিয়ে সিরিজ–সেরার পুরস্কার জেতেন তিনি।


জামিনের শর্তে লামিচানের দেশ ছাড়তে কোনো বাধা নেই। কারাগার থেকে বের হয়ে দেশের বাইরেও খেলেছেন তিনি। নেপালের অধিনায়ক রোহিত পুড়েল লামিচানের এশিয়া কাপ খেলা প্রসঙ্গে বলেছিলেন, ‘লামিচানে খেলতে পারবে না, সেটা নিশ্চিত হয়নি। আশা করছি, ও খেলতে পারবে। আমাদের দলের জন্য ও অনেক ইমপ্যাক্টফুল ক্রিকেটার। অনেক ম্যাচেই জয় পেতে লামিচানে সাহায্য করেছে। তাই আশা করছি, ও পরে দলের সঙ্গে যোগ দেবে।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *