সিদ্ধিরগঞ্জে জামায়াতের ১২ জনকে পুলিশে দিলো আওয়ামিলীগ নেতাকর্মীরা

সিদ্ধিরগঞ্জে অবরোধ সমর্থনে মিছিলের পর নাশকতা করাকালে ১২ জামায়াতকর্মীকে ধরে পুলিশের হাতে সোপর্দ করেছেন আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা। অপরদিকে নাশকতার প্রস্তুতিকালে সিদ্ধিরগঞ্জ থানা পুলিশ আরও চারজন জামায়েত নেতাকে আটক করেছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ওসি গোলাম মোস্তফা।

বৃহস্পতিবার (১৬ নভেম্বর) ভোরে নাগিনা জোহা সড়কের চৌধুরীবাড়ি ও আদর্শবাজার এলাকা থেকে তাদের আটক করা হয়।

আটককৃতরা হলেন— সিদ্ধিরগঞ্জের মাদানিনগর এলাকার মৃত, আব্দুল মান্নানের ছেলে একেএম নুরুল্লাহ (৬৮), একই এলাকার হুমায়ুন কবিরের ছেলে মো. মাইনুদ্দিন (২৩), সিদ্ধিরগঞ্জ বাজার এলাকার মৃত আব্দুল জব্বারের ছেলে মো. সাত্তার (৬৩), ওমরপুর এলাকার মৃত হানিফ মিয়ার ছেলে মো. শামীম আহমেদ (৩৮), চিটাগাং রোড এলাকার মৃত আইয়ুব আলীর ছেলে মো. আফাজ উদ্দিন (৫১), একই এলাকার আবদুর রহিমের ছেলে মো. আনোয়ার হোসেন (৫২)৷ মাদানীনগর এলাকার আবুল হাসেমের ছেলে মোহাম্মদ মমিন (৩৭), চিটাগাং রোড এলাকার আবদুল বারেকের ছেলে মো. বেলায়েত (৩৭), ওমরপুর এলাকার হানিফের ছেলে মোহাম্মদ আবুল কাশেম (৩৪), এনায়েতনগর এলাকার মৃত সাহেব আলীর ছেলে মো. জামান (৩৮), ওমরপুর এলাকার হানিফের ছেলে মো. হাসান (৩৪), একই এলাকার হানিফের ছেলে মো. হাবিবুর রহমান (৫০), পাঠানটুলী এলাকার মৃত রশিদের ছেলে মো. সোহেল রানা (৩১)৷ শিমরাইল এলাকার মৃত এনতাজ আলীর ছেলে মো. মোতাসিম মামুন (৪৩), ফতুল্লা কায়ুমপুর এলাকার মোরশেদের ছেলে মো. মামুন (৩২), সিদ্ধিরগঞ্জের পাঠানটুলী এলাকার মৃত সোবহানের ছেলে মো. রুবেল রানা (২৭)।

কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের নির্বাহী কমিটির সাবেক তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক ও নারায়ণগঞ্জ মহানগর ছাত্রলীগ নেতা তামিম ইসলাম জয় জানান, আজ ভোরের দিকে আদমজী-চাষাঢ়া সড়কের আইটি স্কুলের মোড়ে মিছিল শেষে বাসে আগুন দেওয়ার সময় আমরা ধাওয়া দিই। পরে নাসিক ৮নং ওয়ার্ড আদর্শবাজার এলাকা থেকে ১২ জামায়াতকর্মীকে ধরে পুলিশের হাতে সোপর্দ করি।

এ বিষয়ে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ওসি গোলাম মোস্তফা জানান, নাশকতার প্রস্তুতিকালে জামায়াতের ১২ নেতাকর্মীকে আটক করা হয়েছে। বর্তমানে তারা থানায় রয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন রয়েছে বলে জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *