হুমকি পেয়ে নিরাপত্তা চাইলেন ডলি

বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী আন্দোলন (বিএনএম) মনোনীত প্রার্থী সংগীতশিল্পী ডলি সায়ন্তনী পাবনা-২ (সুজানগর-বেড়ার একাংশ) আসনে নির্বাচন থেকে সরে যাওয়ার হুমকি পাচ্ছেন বলে অভিযোগ করেছেন।

সোমবার (১৮ ডিসেম্বর) সকালে জেলা প্রশাসক ও জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা বরাবর সার্বক্ষণিক নিরাপত্তা চেয়ে লিখিতভাবে বিষয়টি জানিয়েছেন তিনি।

নিরাপত্তাহীনতার কথা উল্লেখ করে ডলি সায়ন্তনী বলেন, ‘মুঠোফোনে কল দিয়ে ও খুদে বার্তা দিয়ে নির্বাচন না করার হুমকি দেওয়া হচ্ছে। সোমবার প্রতীক বরাদ্দের পর গাড়িতে উঠতে না উঠতেই হুমকি পেয়েছেন। তাকে নির্বাচনের মাঠে যেতে নিষেধ করা হচ্ছে।’

রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে দেওয়া অভিযোগপত্রে তিনি জানিয়েছেন, একজন পেশাদার কণ্ঠশিল্পী হওয়ায় দেশ তথা সারা বিশ্বে তার জনপ্রিয়তা রয়েছে। ভক্তরা অনেক সময় আবেগতাড়িত হয়ে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করছে। পাশাপাশি নির্বাচন বন্ধ করা নিয়ে নানা ধরনের ষড়যন্ত্র রয়েছে। বিএনপি-জামায়াতসহ নানা গোষ্ঠী নির্বাচনকে বানচাল করার জন্য অপচেষ্টা করছে। ইতিমধ্যে তাকে বিভিন্নভাবে নির্বাচন থেকে সরে যাওয়ার জন্য হুমকি দেওয়া হচ্ছে। তাই তিনি নিজের নিরাপত্তা ও রাষ্ট্রের মহান উদ্যোগকে ফলপ্রসূ করতে সহযোগিতা কামনা করছেন। সার্বক্ষণিক অস্ত্রধারী নিরাপত্তা রক্ষীর আবেদন করছেন।

এ বিষয়ে পাবনা জেলা প্রশাসক ও জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা মু. আসাদুজ্জামান বলেন, ‘আমরা প্রার্থীর আবেদন পেয়েছি। বিষয়টি তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

উল্লেখ্য, গত ২০ নভেম্বর ডলি সায়ন্তনী বিএনএমে যোগ দিয়ে মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেন। পাবনা-২ আসনের প্রার্থী হিসেবে ২৯ নভেম্বর মনোনয়নপত্র জমা দেন। তবে ৩ ডিসেম্বর মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাইকালে ক্রেডিট কার্ড-সংক্রান্ত খেলাপি ঋণের কারণে তার মনোনয়নপত্র বাতিল ঘোষণা করেন রিটার্নিং কর্মকর্তা। পরে নির্বাচন কমিশনে আপিল করে প্রার্থিতা ফিরে পান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *